For a better experience please change your browser to CHROME, FIREFOX, OPERA or Internet Explorer.
স্কিল ডেভেলপমেন্ট এর গুরুত্ব

স্কিল ডেভেলপমেন্ট এর গুরুত্ব

চাকরির তীব্র প্রতিযোগিতায়  যোগ্য প্রার্থী হতে চান? 

চাকরির বাজারে নিজেকে  অন্যদের থেকে এগিয়ে নিতে চান?

 

বর্তমানে চাকরির বাজারে তীব্র প্রতিযোগিতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তাই এই তীব্র প্রতিযোগিতায় নিজেকে টিকিয়ে  রাখতে চাইলে স্কিল ডেভেলপমেন্ট এর   বিকল্প নেই। বর্তমানে চাকরির বাজারে এখন প্রার্থীর শুধুমাত্র সার্টিফিকেট নয় বরং   বিবেচ্য করা হয় স্কিলকে । আপনি যদি আপনার কাঙ্খিত চাকরি অর্জন করার কথা চিন্তা করে  থাকেন তাহলে নিজের  স্কিল ডেভেলপমেন্ট করতে হবে আজই । 

 

বর্তমান সময়ে পড়াশোনা থেকে শুরু করে ,চাকরি প্রায় সকল ক্ষেত্রে তীব্র প্রতিযোগিতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। প্রতিযোগিতার এই যুগে নিজের এই অস্তিত্ব জানান দিতে চাইলে স্কিল ডেভেলপমেন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ । শুধুমাত্র স্কিল ডেভেলপমেন্ট করে আপনি পেতে পারেন আপনার কাঙ্খিত চাকরি ঠিক  তেমনি যেকোনো খাতে অন্যদের থেকে যেকোনো ক্ষেত্রে নিজেকে খানিকটা এগিয়ে রাখতে পারবেন।

 

চাকরির বাজারের এই তীব্র প্রতিযোগিতার কথা প্রায় সবারই জানা। তাই বিশ্ববিদ্যালয় থাকাকালীন সময়েই পড়াশোনার পাশাপাশি  নিজের স্কিলকে ডেভেলপ করে নেওয়াটা খুবই  জরুরি।কারণ সময় থাকতে নিজের সব প্রতিবন্ধকতা  দূর করে সামনে এগিতে যেতে হবে। 

 

আপনার প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন স্কিল অর্জন চাইলে  কিছু কিছু জিনিস মাথায় রাখতে হবে :

 

১.শেখার আগ্রহ :

আপনি যেকোনো স্কিল রপ্ত করতে চান না তার জন্য আপনার মাঝে শেখার আগ্রহ থাকতে হবে। কারণ কোনো কিছু শেখার আগ্রহ না থাকলে সময় ব্যয় করেও কোনো ধরণের কাঙ্খিত  ফলাফল অর্জন করতে পারবেন না।

 

২.সময়ঃ

কোনো কিছু শুরুতেই আপনি শিখতে পারবেন না। শিক্ষার জন্য আপনাকে সময় ব্যয় করতে হৰে।

 

৩.নির্দিষ্ট লক্ষ্য  :

আপনি যে ধরণের স্কিল ডেভেলমেন্ট করতে চান না কেন তা সবসময় আগে থেকেই ঠিক করে রাখবেন। একটা নির্দিষ্ট সময়ের ভেতর কত কি পরিমান লক্ষ্য অর্জন করবেন তা আগে থেকেই ঠিক করে রাখুন।

 

৪.বেসিক স্কিল রপ্ত:

আপনার ক্যারিয়ার যে দিক মুখী হউক না কেন আপনাকে স্কিল ডেভেলপমেন্ট করার ক্ষেত্রে সবার আগে বেসিক স্কিল রপ্ত করতে হবে।

 

৫.দ্রুত সম্পন্ন করার মানসিকতা:

আপনি যে ধরনের কোর্স শুরু করতে চান না কেন তা দ্রুত সম্পন্ন করার মানসিকতা থাকতে হবে। তবে আপনি আগাতে পারবেন ।

 

আপনি যে ধরণের কোর্স  শুরু করতে চান না কেন শুরুতে আপনার একঘেয়েমিতা চলে আসাটাই স্বাভাবিক। তাই বেসিক কোর্স শুরু এর পাশাপাশি আপনার নিজের পছন্দের আগ্রহের বিষয়ের উপর অনেক কোর্স পাবেন যা আপনাকে একঘেয়েমিতা দূর করতে সাহায্য করবে সেইসাথে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে সাহায্য করবে।

 

আজকাল বহু স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা শিক্ষার্থীদের স্কিল ডেভেলপমেন্ট এর কোর্স করিয়ে থাকে। এইসকল প্রতিষ্ঠান থেকে কোর্স করে আপনি আপনার স্কিল ডেভেলপমেন্ট করতে পারবেন।তাছাড়া আপনি কোনো এডুটেক প্ল্যাটফর্ম থেকেও কোর্স করিয়ে নিতে পারেন। অনলাইনে অনেক রিসোর্স আছে যা আপনার স্কিল ডেভেলপমেন্ট কাঙ্খিত স্কিল অর্জনে ভূমিকা পালন করবে।

 

তাই কাঙ্খিত চাকরি অর্জনে স্কিলকে বাধা হিসেবে দাঁড় করতে না চাইলে আজই স্কিল ডেভেলমেন্ট করে নিজের চাকরির  ক্যারিয়ার দীর্ঘমেয়াদি করুন।

 

leave your comment